এই মানুষ বনে গেলে বন মানুষ হয়

আমার নানী প্রায়শ বলতেন “এই মানুষ বনে গেলে বন মানুষ হয়।” যদিও কথাটির মাঝে যুক্তি এবং দর্শন আছে, তথাপিও সে সময় এই কথার অর্থ বুঝতাম না, তবে এখন উক্ত কথাটির মর্মার্থ বুঝতে পারি। প্রকৃতপক্ষে আমি স্বয়ং উক্ত কথাটির একটি বাস্তব উদাহরণ।
 উদাহরণ ১: শৈশবে (আজ থেকে ২০-২৫ বছর আগে) যখন গ্রামে থাকতাম তখন ডোবায় বা পুকুরে ডুব দিয়ে হাতরিয়ে হাতরিয়ে মাছ ধরে আনতাম। সময়ের বিবর্তনে ডুব দিয়ে এখন ২ মিটার পানির নিচের বস্তু তুলে আনতে ব্যর্থ হয়েছি সম্প্রতি এক পরিক্ষায়।
উদাহরণ ২: দেশে থাকতে শীতকালে একসাথে ৫-৬ টা গরম কাপর পরে শীতের হাত থেকে পরিত্রাণ পাওয়ার চেষ্টা করতাম এক সময়। বর্তমানে শীত প্রধান দেশে, মাইনাস ১০ ডিগ্রি ঠান্ডায় টি শার্ট গায়ে দিয়ে একটানা ৩০ মিনিট হাটাহাটি করার রেকর্ড করেছি।
শুধু তাই নয় ২০১৩ সালে একবার এক নদের উপর ৩ ফিট পুরু জমে যাওয়া বরফ কেঁটে নদের পানির উপর ভাস্কর্য বানিয়েছিলাম একটানা ৭ দিন পরিশ্রম করে।

 সারকথা: সময় পরিবেশ পরিস্থিতির সাথে ব্যক্তি বা বস্তুর প্রকৃতি পরিবর্তিত হয়।



Comments

Popular posts from this blog

আনন্দলোকে মঙ্গলালোকে বিরাজ সত্যসুন্দর

Dive into the Colorful World of Cartoon Art: A Journey through Toons Mag Articles

Welcome to Cartoonist Network: A Haven for Creative Minds