আমার কবিতা

আমি তখন ক্লাস ৭-এ পরি।
একদিন রাতে, পড়ার টেবিলে বই সামনে নিয়ে কবিতা পড়ছিলাম। হঠাত লোডশেডিং হওয়ায় অন্ধকারে বসে বসে মুখুস্ত করা কবিতা আওড়াচ্ছিলাম। হঠাত মনে হলো, কবিতা লেখাতো কঠিন কিছু নয়, এরকম যদি আমিও লিখতে পারি। একদিন হয়ত অন্যরা আমার কবিতা মুখুস্ত করবে আর পরীক্ষার খাতায় আমার কবিতা অনুযায়ী উত্তর লিখবে, সারমর্ম লিখবে, ব্যখা লিখবে।  বিষয়টা আমাকে পুলকিত করেছিল।  এরপর আমি ১২ লাইনের একটা কবিতা লিখেছিলাম। আমার প্রথম কবিতাটা ছিল বাংলাদেশকে নিয়ে। কবিতায় তেমন কোনো আহামরি বিষয় ছিল না।  সহজ সরল ভাষায় ছন্দের সাথে ছন্দ মিলিয়ে কিছু কথা ছিল আমার দেশকে নিয়ে। সেই ছিল শুরু।  এরপর স্কুলে ম্যাগাজিনে আমার একটা কবিতা প্রকাশিতও হয়েছিল।  আর একারণে ক্লাসের বন্ধুরা আমাকে কবি নামে ডাকত। বন্ধুরাই ছিল আমার অনুপ্রেরণা। এরপর স্থানীয় কিছু পত্র পত্রিকায় আমার কিছু কবিতা প্রকাশিত হয়েছিল।
২০০৬ সাল পর্যন্ত আমার লেখা সর্বমোট কবিতার সংখা হয়েছিল ৫০০ এর উপরে।  অনেক কবিতা হারিয়ে গেছে, সংগ্রহে তেমন কিছু নাই বললেই চলে। একবার আমার কবিতার খাতা আমার ছোট বোন বাতিল কাগজ মনে করে কেজি দরে বিক্রি করে দিয়েছিল।

ইদানিং সময় পেলে আমি মিনি কাব্য লিখি। চার লাইনের ছোট কবিতা। কাগজে নয় অনলাইনে, পড়তে চাইলে লিঙ্কে ক্লিক করতে পারেন http://www.shobdo.com

Comments

Popular posts from this blog

ফেসবুক ভেরিফাইড একাউন্ট

দূরত্ব

মুহূর্তের আলিঙ্গনে